কক্সবাজারে ঢাবি শিক্ষার্থীকে কুপিয়ে জখম

কক্সবাজার প্রতিনিধি:

কক্সবাজারে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীকে কুপিয়ে জখম করেছে তার নিকটাত্মীয়রা। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। রোববার বিকালে সদর উপজেলার ঝিলংজার ৯নং ওয়ার্ডের খরুলিয়া মুন্সিপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। আহত শিক্ষার্থী রাসেল রহমান (২১) ওই এলাকার হাবিবুর রহমানের ছেলে ও ঢাবির জাপানিজ স্টাডিজ বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র।

রাসেলের মা জাহানারা বেগম জানান, তাদের বাড়ীর পার্শ্ববর্তী মৃত মকবুল মিস্ত্রির পরিবারের সাথে দীর্ঘদিন ধরে বসতভিটা সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিলো। রবিবার দুপুরে বাড়ির উঠানে জমে থাকা পানি নিষ্কাশনের ব্যাপারে সামান্য কথা কাটাকাটি হলে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে মকবুলের ছেলে মোঃ ইউনুস, মোঃ কবির ও মোঃ শফি তারা সহোদর তিন ভাইসহ একদল সন্ত্রাসী বাড়ির ভেতরে ঢুকে হামলা, ভাংচুর ও লুটপাট চালায়।

এসময় তাদেরকে বাধা দিলে ধারালো চাপাতি দিয়ে উপর্যুপরি কুপিয়ে বাড়ীতে থাকা ঢাবি শিক্ষার্থী রাসেলকে গুরুতর আহত করে। পরে এলাকাবাসী তাকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। বর্তমানে তার অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। এদিকে এলাকাবাসী জানান, স্থানীয় মকবুল মিস্ত্রির ৭ ছেলে এলাকার মানুষের ওপর প্রতিনিয়তই অত্যাচার চালিয়ে যাচ্ছে।

এ বিষয়ে ঝিলংজা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান টিপু সুলতান বলেন, আহত ওই শিক্ষার্থী অত্যন্ত হতদরিদ্র পরিবারের ছেলে। তার বাবা একজন প্রতিবন্ধী। গ্রামবাসীর দেয়া চাঁদার টাকায় ছেলেটি পড়ালেখা করে। তার উপর হামলা ও পরিবারটির সাথে এমন নিষ্ঠুর ঘটনাটি মেনে নেওয়া যায়না। তিনি প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

কক্সবাজার সদর মডেল থানার ওসি মনির উল গিয়াস বলেন, পারিবারিক বিরোধ ও স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয় নিয়ে তার আপন চাচা ও চাচাতো ভাইয়েরা তাকে কুপিয়ে জখম করেছে। এ ঘটনায় আহত ঢাবি ছাত্রের এক অভিভাবক বাদী হয়ে থানায় মামলা করেছেন। পুলিশ হামলাকারীদের গ্রেফতারে অভিযান চালাচ্ছে।

আপনার মতামত লিখুন :