কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে পুলিশ পরিচয়ে প্রেম, ৮ম শ্রেনীর ছাত্রী ধর্ষণের শিকার

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি

কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে পুলিশ পরিচয়ে প্রেমের সম্পর্ক করে অষ্টম শ্রেণির এক স্কুল ছাত্রীকে (১৪) ভাড়া বাসায় ডেকে নিয়ে একাধিকবার ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে রাসেল আহমেদ (৩০) নামক এক যুবকের বিরুদ্ধে। ধর্ষক কুমারখালী পৌরসভার ৪ নং ওয়ার্ডের সাবেক কমিশনার গোলাম মোর্শেদ মিলনের বখাটে পুত্র।ধর্ষিতা আলাউদ্দিন নগর মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী। মেয়েটি বলেন, রাসেল পুলিশের চাকরি করে ও ঝিনাইদহে বাসা জানিয়ে জোর করে আমার সাথে প্রেমের সম্পর্ক করে এবং শহরের নিশান মোড়স্থ্য একটি বাড়ি আমাকে বউ পরিচয় দিয়ে ভাড়া নেয়। এবং আমাকে বিয়ের প্রলোভ দেখিয়ে ভিডিও ভাইরাল করার ভয় দেখিয়ে ওই বাড়ি সহ একাধিক জায়গাতে নিয়ে আমাকে জোর পূর্বক ধর্ষন করে।

ধর্ষিতার বাবা বাবু বলেন ,পুলিশ পরিচয়ে প্রতারণা করে আমার অষ্টম শ্রেণি পড়ুয়া মেয়ের সাথে দুইমাস আগে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে রাসেল।এরপর কুষ্টিয়া নিশানমোড় এলাকায় একটা বাসা ভাড়া করে মেয়েকে ডেকে নিয়ে একাধিক বার ধর্ষণ করে ভিডিও ধারণ করে রাসেল।এক পর্যায়ে আমার মেয়ে রাসেলের প্রতারণা টের পেয়ে এড়িয়ে চললে রাসেল মুঠোফোনে অশ্লীল ভিডিও ইন্টারনেটে ছেড়ে দেওয়া হুমকি দেওয়া বিষয়টি জানাজানি হয়।তিনি আরো জানান,এবিষয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে। ঘটনার সত্যতা স্বীকার কুমারখালী থানার অফিসার ইনচার্জ মজিবুর রহমান জানান,প্রেমের সম্পর্ক ধরে অষ্টম শ্রেণির স্কুল ছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছে।তিনি আরো জানান,ঘটনাটি সদর থানায় হওয়ায় ভিকটিমদের সদরে পাঠানো হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :