টঙ্গীবাড়ীতে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত ৩

টঙ্গীবাড়ী,মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি

মুন্সীগঞ্জের টঙ্গীবাড়ী উপজেলায় ওয়াইফাই লাইন দেওয়াকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলায় ৩ জন আহত হয়েছে। গুরুতর আহত সুমন খানকে (৩২) আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ব্যাপারে আহত সুমন খানের স্ত্রী সাহেলা আক্তার বাদী হয়ে ১০ জনকে আসামি করে টঙ্গিবাড়ী থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। জানাগেছে, মঙ্গলবার সন্ধায় টঙ্গিবাড়ী উপজেলার বাশবাড়ি গ্রামের মৃত সাত্তার খানের ছেলে সুমন খান বাড়ির পাশেই টঙ্গিবাড়ী উপজেলার মাঝি বাড়ি এলাকায় ওয়াইফাই লাইনের তার টানতে যায়।

এ সময় অপর ওয়াইফাই ক্যাবল লাইনের মালিক টঙ্গিবাড়ীর মাঝি বাড়ির বাচ্চু মাঝি তাদের বাধা দেয়। এ সময় বাক বন্ডিতার জের ধরে দিপু মাঝি, তুমান মাঝি, রায়হান মাঝি, তুর্যয় মাঝি, সোহাগ মাঝিসহ ১৫-২০ জন হামলা চালিয়ে সুমন খান ও তার সাথে থাকা সহিদ খান, ইমন খানকে পিটিয়ে গুরুতর জখম করে। পরে তারা সুমন খানকে রাস্তার পাশ হতে তুলে নিয়ে টঙ্গিবাড়ী মাঝি বাড়ির সামনের এক সব্জির আড়ৎতের ভিতর ঢুকিয়ে লোহার রড, কাঠের দাসা দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর জখম করে।

পরে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে টঙ্গীবাড়ী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্্র হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে। এ ব্যাপরে টঙ্গিবাড়ী থানা অফিসার ইন চার্জ হারুন অর রশিদ জানান, ওয়াইফাই তার টানাকে কেন্দ্র করে সুমন খানকে অনেক মারধর করা হয়েছে। অভিযোগ পেয়েছি আইনগত ব্যাবস্থা নেওয়া হবে।

 

আপনার মতামত লিখুন :