ডেমরায় স্বামীর হাতে স্ত্রী খুন

হাফিজুর রহমান

রাজধানীর ডেমরার মধ্য হাজী নগর ক্যানেল পাড়ের গৃহবধূকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করার অভিযোগ উঠে স্বামীর বিরুদ্ধে। ঘটনার পর থেকেই গৃহবধূর স্বামী পলাতক রয়েছে বলে জানা যায়। রবিবার (২৪ জানুয়ারি) সন্ধার দিকে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দিলে মৃত সিরাজ হাজীর বাড়ির নীচ তলা থেকে রাশি আক্তার নামে ওই গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়। সরেজমিনে গিয়ে জানা যায় ঘটনার পর থেকেই গৃহবধুর স্বামী জুনায়েদকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। তাই মনে করা হচ্ছে পারিবারিক কলহের জের ধরেই এ খুনের ঘটনা ঘটেছে। রাশির এটি দ্বিতীয় বিয়ে। আগের ঘরে তার তিন বছরে একটি সন্তান রয়েছে, ঘটনার সময় সন্তানটিও বাসায় ছিলেন না। কখন নিহতের স্বামী বাসায় আসা যাওয়া করতেন তাও কেউ সুনিশ্চিত ভাবে বলতে পাচ্ছেন না। এমনকি রাশি আক্তার নামে ওই গৃহবধূকে কখন কিভাবে হত্যা করা হয়েছে এমন তথ্য পাওয়া যায়নি। এ বিষয়ে ডেমরা জোনের সহকারি উপ-পুলিশ কমিশনার দিন মুহাম্মদ দৈনিক আমাদের কন্ঠকে বলেন স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে আনুমানিক ২৫ বছর বয়সী গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করা হয়।

মরদেহটি বিছানায় শোয়া অবস্থায় জিভ বের করা ছিল। তাই প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে শ্বাাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে তাকে। লাশটি মিটফোর্ড হাসপাতালে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। গৃহবধূর স্বামীকে পাওয়া গেলে প্রকৃত ঘটনা বেরিয়ে আসবে বলে প্রশাসনের প্রাথমিক ধারণা। শনিবার রাত থেকে গতকাল সন্ধ্যা পর্যন্ত যে কোন সময় এ ঘটনাটি ঘটে। তিনি আরো বলেন, ঘটনার পর থেকেই গৃহবধুর স্বামী জুনায়েদকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। তাই মনে করা হচ্ছে পারিবারিক কলহের জের ধরেই এ খুনের ঘটনা ঘটে। রাশির এটি দ্বিতীয় বিয়ে। আগের ঘরে তার তিন বছরে একটি সনাতান রয়েছে। লাশটি মিটফোর্ড হাসপাতালে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে। গৃহবধূর স্বামীকে পাওয়া গেলে প্রকৃত ঘটনা বেরিয়ে আসবে। তিনি আরও বলেন, ‘গৃহবধূ রাশির এটি দ্বিতীয় বিয়ে। আগের ঘরে তার তিন বছরে একটি সন্তান রয়েছে। লাশ মিটফোর্ড হাসপাতালে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানোর প্রক্রিয়া চলছে।’ গৃহবধূর স্বামীকে পাওয়া গেলে প্রকৃত ঘটনা বের হয়ে আসবে বলেও জানান তিনি।

আপনার মতামত লিখুন :