দাম কমেছে ব্রয়লার মুরগির

স্টাফ রিপোর্টার

 

গত কয়েক মাস ধরে অস্বাভাবিক উত্থান পতন হওয়া ব্রয়লার মুরগির দাম রাজধানীর বিভিন্ন বাজারে একদিনের ব্যবধানে কেজিতে ১০ টাকা পর্যন্ত কমেছে। শনিবার (৪ জুলাই) রাজধানীর বিভিন্ন বাজারের খুচরা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা বলে এমন তথ্য পাওয়া গেছে।

এদিকে সরকারি প্রতিষ্ঠান ট্রেডিং করপোরেশন (টিসিবি) জানিয়েছে, ব্রয়লার মুরগির পাশাপাশি গত এক সপ্তাহে এলাচ, রসুন, সয়াবিন তেল, পেঁয়াজ, আমদানি করা আদা, হলুদ ও জিরা’র দাম কমেছে। তবে কিছুটা বেড়েছে দেশি আদার দাম।

খুচরা ব্যবসায়ীদের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, ব্রয়লার মুরগির কেজি বিক্রি হচ্ছে ১৫০ থেকে ১৬০ টাকা, যা গতকাল শুক্রবার ছিল ১৬০ থেকে ১৭০ টাকা। এ হিসেবে একদিনের ব্যবধানে ব্রয়লার মুরগির দাম কেজিতে কমেছে ১০ টাকা।

ব্রয়লারের দাম কমার বিষয়ে খিলগাঁওয়ারের ব্যবসায়ী আবুল বলেন, ব্রয়লার মুরগির দাম অনেক দিন ধরেই চড়া। সাধারণত শুক্রবার মুরগির দাম একটু বেশি থাকে। গতকাল ১৭০ টাকা কেজি ব্রয়লার বিক্রি করেছি। আজ ১৬০ টাকা বিক্রি করছি।

রামপুরায় ১৫০ টাকা কেজি ব্রয়লার বিক্রি করা মিলন বলেন, গতকাল ১৬০ থেকে ১৬৫ টাকা কেজি ব্রয়লার বিক্রি করেছি। আজ পাইকারি বাজার থেকে একটু কম দামে মুরগি কিনতে পেরেছি। তাই ১৫০ টাকা কেজি বিক্রি করছি। তবে ক্রেতা খুব একটা নেই।

এদিকে টিসিবি জানিয়েছে, সপ্তাহের ব্যবধানে ব্রয়লার মুরগির দাম এক দশমিক ৬১ শতাংশ কমেছে। খুচরা বাজারে ব্রয়লার মুরগির কেজি বিক্রি হচ্ছে ১৪৫ থেকে ১৬০ টাকা, যা আগে ছিল ১৫০ থেকে ১৬০ টাকা কেজি।

এক সপ্তাহে এলাচের দাম ৫ দশমিক ৯৭ শতাংশ, দেশি রসুন ৫ শতাংশ, আমদানি করা রসুন ১০ দশমিক ৫৩ শতাংশ, লুজ সয়াবিন তেল ২ দশমিক ৩০ শতাংশ, দেশি পেঁয়াজ ১১ দশমিক ৭৬ শতাংশ, সরু চাল দশমিক ৮৫ শতাংশ, আমদানি করা আদা ৬ দশমিক ৬৭ শতাংশ, হলুদ ১২ দশমিক ৫০ শতাংশ এবং জিরা’র ১২ শতাংশ দাম কমেছে। বিপরীতে দেশি আদার দাম ৪ দশমিক ৩৫ শতাংশ বেড়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :