দুঃশ্চিন্তা ও হতাশায় দিন পাড় করছেন কুষ্টিয়ার কামার

আব্দুর রাজ্জাক বাচ্চু, কুষ্টিয়া

ঈদুল আজহার আর মাত্র কদিন বাকি। ঈদকে কেন্দ্র করে কুষ্টিয়ার কামার স¤প্রদায়ের মধ্যে নেই তেমন ব্যস্ততা। অন্যান্য বছর এ সময়ে ব্যাপক ব্যস্ততার মধ্যে দিন পাড় করতো কামারেরা। ঈদুল আজহার এই সময়ের আয়ের জন্যই সারাবছর অপেক্ষা করে থাকেন তারা। কিন্তু এখনও শুরু হয়নি তাদের সেই ব্যস্ততা। কামাররা মূলত ঈদুল আজহার ঈদকে সামনে রেখে সারা বছরের অতিরিক্ত আয় করে থাকেন আর এই আয়ের টাকাতেই তারা পরিবারের অতিরিক্ত চাহিদাগুলো মেটান। কিন্তু এ বছরের ঈদের চিত্র পুরোটাই ভিন্ন। এবার করোনার প্রভাবে কুষ্টিয়ায় পশু কোরবানি কমে যাওয়ায় কমে গেছে জেলার কামারদেরও কাজ।

এর ফলে কামারদের মধ্যে দেখা দিয়েছে হতাশা। বিক্রির জন্য চাপাতি, চাকু, বটি তৈরি করে রাখলেও আশানুরূপ ক্রেতার দেখা পাচ্ছেন না কামাররা। এতে পরিবার, নিয়ে দুঃশ্চিন্তা ও হতাশায় দিন পাড় করছেন জেলার কামার স¤প্রদায়ের মানুষের। কুষ্টিয়ার বিভিন্ন এলাকায় কামারদের দোকানে গিয়ে দেখা যায় তাদের ব্যস্ততা একেবারেই কম। লোহা ও কয়লার মূল্য বৃদ্ধি পাওয়ায় আগের মতো দা, চাকু, চাপাতি, ছোড়াসহ বহু সরঞ্জাম তৈরী করতে পারছেন না তারা, অন্যদিকে সব কিছুর দাম বাড়ায় ক্রেতার সংখ্যাও কমে গেছে। তারপরেও শেষ মুহূর্তে কিছু বেচা-কেনা হবে এমন আশায় অপেক্ষায় রয়েছেন কুষ্টিয়া জেলার কামাররা।

আপনার মতামত লিখুন :