দেশের আর্থিক প্রতিষ্ঠানও খুলছে কাল

নিজস্ব প্রতিবেদক : করোনা সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি ঠেকাতে সরকার ঘোষিত কঠোর লকডাউনের মধ্যে গ্রাহকদের জরুরি সেবা দিতে ব্যাংকবহির্ভূত দেশের আর্থিক প্রতিষ্ঠান সীমিত পরিসরে খোলা রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বুধবার এ বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের আর্থিক প্রতিষ্ঠান ও বাজার বিভাগ থেকে এক সার্কুলার জারি করা হয়েছে। বাংলাদেশে ৩৪টি ব্যাংকবহির্ভূত আর্থিক প্রতিষ্ঠান রয়েছে।

সার্কুলারে বলা হয়েছে, বৃহস্পতিবার থেকে আর্থিক প্রতিষ্ঠানের সর্বোচ্চ দুটি শাখা (একটি ঢাকায়, আরেকটি বাইরে) ও প্রধান কার্যালয়ের সংশ্লিষ্ট বিভাগগুলো সকাল ১০টা থেকে বেলা ২টা পর্যন্ত চার ঘণ্টার জন্য চালু থাকবে।এতে বলা হয়, সরকারের মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের নির্দেশনার প্রেক্ষিতে গ্রাহকদের জরুরি আর্থিক সেবা প্রদানের লক্ষ্যে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সীমিত পরিসরে আর্থিক প্রতিষ্ঠানসমূহের কার্যক্রম চালু রাখার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।এ সার্কুলারের ফলে গ্রাহকরা এখন মেয়াদপূর্তিতে স্থায়ী আমানত ভাঙানো ও ঋণের কিস্তি জমা দেওয়াসহ জরুরি আর্থিক সেবাগুলো নিতে পারবে।

গত ৫ এপ্রিল থেকে সারা দেশে কঠোর লকডাউন চলছে।এরমধ্যে করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়ায় দ্বিতীয় দফায় আরও এক সপ্তাহ বাড়িয়ে আগামী ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত লকডাউন বলবৎ রাখা হয়েছে।তবে এই লকডাউনের শুরু থেকেই সীমিত পরিসরে ব্যাংক ও পুঁজিবাজার চালু রয়েছে।এবার দেশের আর্থিক প্রতিষ্ঠানও খুলে দেওয়া হলো।

আপনার মতামত লিখুন :