ধর্ষিতার অনশন কর্মসূচিতে নারী নেত্রীবৃন্দের একাত্মতা

স্টাফ রিপোর্টার

নেত্রকোনা জেলার কেন্দুয়া থানার থানার ওসির শেল্টারে থাকা ধর্ষণকারীকে গ্রেপ্তার ও মামলা রেকর্ডের দাবিতে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আমরণ অনশনরত ধর্ষিতার সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করেছেন নারী নেত্রী বৃন্দ । তাদের অংশগ্রহনে একাত্মতা প্রকাশ করে কর্মসূচীতে যোগ দিয়েছেন আরো শতাধিক নারী ।
গত রবিবার থেকে রাজধানী ঢাকায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে একাই আমরণ অনশন করেন নেত্রকোনার কেন্দুয়ায় পাড়াতলী গ্রামের এক এসএসসি পরীক্ষার্থী। অনশনকালে বিষয়টি নারী নেত্রীবৃন্দের দৃষ্টি আকৃষ্ট হয় । অনশনে অন্যান্যের মধ্যে অংশগ্রহন করেন মমতা নারী কল্যান সংস্থার সভানেত্রী নাজমা খাতুন, মানবাধিকার উন্নয়ন সংস্থার সভানেত্রী সালেহা খাতুনসহ নেত্রীবৃন্দ ।

ভ’ক্তভোগীর অভিযোগ, তিনি ধর্ষনের শিকার হন। বিচার না পেয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন। যা বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়। সেই সংবাদ ফেসবুকে নিজের ওয়ালে শেয়ার করেন ধর্ষিতার এলাকাবাসী । এতে ক্ষুব্ধ হয়ে ধর্ষককে বাদী করে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করান ওসি । ধর্ষিতা অভিযোগ করেন, থানার ওসি রাশেদুজ্জামানের বিরুদ্ধে মামলা না নেয়ায় আইজিপি বরাবর অভিযোগ করায় এসব করান ওসি ।
এর আগে ওই ভূক্তভোগীর ভাই নেত্রকোনা জেলা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করেন, গত ২৯ জানুয়ারি কেন্দুয়া পৌরসভার শান্তিনগর এলাকার সোহরাব মাস্টারের বাড়িতে আমার বোনকে একই উপজেলার ছিলিমপুর গ্রামের প্রভাবশালী মুকুল খানের ছেলে প্রিন্স খান বাবু ধর্ষণ করেন। পরে ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ প্রিন্স বাবু আটক ও তার বোনকে থানায় নিয়ে যায়। পরদিন প্রিন্স খান বাবুর বিরুদ্ধে থানায় মামলা করতে যান তিনি। অজ্ঞাত কারণে তাকে থানার একটি কক্ষে ১৪ ঘণ্টা আটকে রাখে পুলিশ। ওসি মোহাম্মদ রাশেদুজ্জামান উল্টো অভিযোগকারী ও ভিকটিমকে হুমকি দেন। মামালাও রেকর্ড করছে না ওসি ।

অনশনকারি ভূক্তভোগী বলেন, এখনও পর্যন্ত বিষয়টি নিয়ে কোনও মামলা গ্রহণ করা হয়নি উপরন্তু আমাকে এবং বড় ভাইসহ পরিবারের সদস্যদের ওসি রাশেদুজ্জামানের শেল্টারে হুমকি দিচ্ছে ধর্ষণকারী ও তার সহযোগীরা ।
ধর্ষকের কবল থেকে নিজের ভাইসহ পরিবারের সদস্যদের নিরাপত্তা এবং ধর্ষণকারীর বিরুদ্ধে মামলা রেকর্ড করার দাবীতে অনশনে নেমে ধর্ষীতা তার ধর্ষনকারীর বিরুদ্ধে মামলা গ্রহণ এবং ওসির বদলী চেয়ে প্রধান মন্ত্রী, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী , আইজিপি’র হস্তক্ষেপ কামনা করেন । অন্যথায় আমরন অনশন কর্মসূচী পালন করে যাবেন বলে ঘোষণা দেন । এদিকে নির্যাতিতার আমরণ অনশন কর্মসূচিতে নারী নেত্রীরা একাত্মতা প্রকাশ করে ওসির বদলী, কেন্দুয়া থানায় ধর্ষণের মামলা গ্রহন এবং ধর্ষকারীর গ্রেপ্তারের দাবি জানান । নারী নেত্রীবৃন্দ নির্লজ্জ ওসির বদলী ছাড়া অনশন কর্মসূচি স্থগিত করবেন না বলে জানিয়ে দেন ।

আপনার মতামত লিখুন :