বাগেরহাটে গ্রামীন রাস্তা উন্নয়নের কাজে চরম ফাঁকি: ক্ষুব্ধ এলাকাবাসি

তালুকদার আঃ বাকী,বাগেরহাট

বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জ উপজেলায় গ্রামীন রাস্তা উন্নয়নের কাজে চরম ফাঁকি দেয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। জনস্বার্থে ইটের সলিং রাস্তা নির্মানে টেন্ডার বিধিমতে কাজ না করে বেশী লাভের আশায় সংশ্লিষ্ট ঠিকাদার ২ নম্বর ইট ও দেড় থেকে দুই ইঞ্চি বালু দিয়ে বনগ্রাম ইউনিয়নের বিষখালি শনি মন্দির থেকে বাবুল সিংয়ের দোকান পর্যন্ত ৫০০ মিটার রাস্তার কাজ করছে। অথচ টেন্ডার বিধিতে রয়েছে নতুন এ রাস্তায় ১ নং- বাটার ইট ও ১০ ইঞ্চি উচু করে করে বালু দিতে হবে। এ অনিয়ম দৃশ্যমান হলে ওই রাস্তা ব্যবহার কারী এলাকাবাসি ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে এবং স্থানীয় ইউপি মেম্বর সুনিল কুমার মন্ডলসহ এলাকাবাসি অনিয়মের প্রতিবাদ করেন।

এ রাস্তা নির্মানের বিষয়ে মোড়েলগঞ্জ উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার কার্য্যলয় সুত্র জানায়, ২০১৯/২০ অর্থ বছরে ত্রান মন্ত্রনালয়ের আওতায় ওই রাস্তাটি ৫০০ মিটার ইটের সলিং করতে ২৭ লাখ টাকা বরাদ্দ হয়। যা টেন্ডার করে কার্যাদেশ দেয়া হয়েছে। আর এ রাস্তাটি নির্মানের জন্য ওই এলাকায় বাড়ী হওয়ায় স্থানীয় সরকার মন্ত্রনালয়ের সাবেক অতিরিক্ত সচিব উৎপল কুমার দাস এলাকাবাসির স্বার্থে সুপারিশ করে রাস্তাটি নির্মানের ব্যবস্থা করেছেন। যার কারনে রাস্তা নির্মান কাজে অনিয়ম দেখে স্থানীয়রা অতিরিক্ত সচিব কে জানান। এ বিষয়ে মুঠোফোনে সাবেক অতিরিক্ত সচিব উৎপল কুমার দাস জানান, রাস্তাটি নির্মান মান সম্মত হচ্ছে না। স্টিমেট অনুযায়ি ইট ও বালু দেয়া হচ্ছে না। নির্মান কাজের তদারকিতে সংশ্লিষ্ট দপ্তরের উদাসিনতা রয়েছে বলে মনে হয়। তবে এলাকাবাসি তদারকি করলে এ কাজে অনিয়ম হবে না। এ বিষয়ে বনগ্রাম ইউপি চেয়ারম্যান রিপন দাস বলেন, রাস্তাটি বিশেষ তদবীরে করা হচ্ছে বলে এখানে অনিয়ম বা নিম্মমানের র্নিমান সামগ্রি ব্যবহার হচ্ছে না।

 

আপনার মতামত লিখুন :