বিদ্যুতে ঝলসে গেল ৫ শ্রমিক

নিজস্ব প্রতিবেদক:  নোয়াখালীতে পানির নলকূপ স্থাপন করতে গিয়ে বিদ্যুতের লাইনে একটি লোহার পাইপ পড়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ঝলসে গেছে পাঁচ শ্রমিকের শরীর। এতে জাতীয় গ্রিডের লাইনে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ হয়ে যায়। সোমবার বিকেলে বেগমগঞ্জ উপজেলার নরোত্তমপুর ইউনিয়নে রশিদের ট্যাক এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

আহত শ্রমিকরা হলেন, আবু ইউছুফ (২০), রিপন (২৪), নূর আলম (২০), ইসমাইল হোসেন (১৯) ও রুবেল হোসেন (৩০)। আহতদের উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।আহত শ্রমিকরা জানান, সকাল থেকে উপজেলার নরোত্তমপুরের রশিদের ট্যাক এলাকার বিপ্লব নামের এক ব্যক্তির বাড়িতে পানির জন্য গভীর নলকূপ স্থাপনের কাজ করছিলেন তারা। এক পর্যায়ে নলকূপের কাজে ব্যবহৃত একটি লোহার পাইপ কাত হয়ে পাশের বিদ্যুৎ লাইনের ওপর পড়ে। পাইপটি বিদ্যুতের লাইনের ওপর থেকে দ্রুত তুলতে গেলে সবাই বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়। এতে তাদের পাঁচ জনের শরীরের বিভিন্ন অংশ ঝলসে গেছে।

নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের আরএমও সৈয়দ মো. আবদুল আজিম বলেন, বিদ্যুতে পাঁচ জনের হাত-পাসহ শরীরের বিভিন্ন অংশ ঝলসে গেছে। হাসপাতালে তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (বিউবো) চৌমুহনী সাব-স্টেশনের উপ-সহকারী প্রকৌশলী তানভীর হোসেন জানান, সোমবার বিকেলে ওই দুর্ঘটনার সাথে সাথে বিউবোর ১ লাখ ৩২ হাজার কেভিএ গ্রিড লাইনে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ হয়ে যায়। তাৎক্ষণিক বিদ্যুৎ বিভাগের লোকজন গিয়ে লাইনের ওপর পড়া পাইপটি সরিয়ে নেন।প্রায় ৩০-৪০ মিনিট পুরো জেলায় বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ থাকার পর পুনরায় তা সচল করা হয়েছে বলে তিনি জানান।

আপনার মতামত লিখুন :