বেনাপোলে ৫১ লাখ টাকার স্বর্ণ ও ৯০ হাজার ডলারসহ আটক ৩

বেনাপোল প্রতিনিধি
যশোরের বেনাপোল সীমান্ত দিয়ে ভারতে পাচারকালে ৫১ লাখ টাকার ১০টি স্বর্ণের বার ও প্রায় ৯০ হাজার মার্কিন ডলারসহ তিনজনকে আটক করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ৯টা থেকে ১০টা পর্যন্ত পৃথক দু’টি অভিযানে তাদের আটক করা হয়। বিজিবি ৪৯ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আরিফুল হক জানান, গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে যশোর সদর উপজেলার পতেঙ্গালী কবিরাজ পাড়া এলাকা থেকে ৫১ লাখ টাকার সোনাসহ একজনকে আটক করা হয়। আটক হাসানুজ্জামান (৩০) যশোর সদর উপজেলার খড়কী গ্রামের মমিন উদ্দিনের ছেলে। বিজিবি কর্মকর্তা আরিফুল বলেন, ভারতে সোনা পাচার হচ্ছে বলে গোপনে খবর পেয়ে শালকোনা বিজিবির হাবিলদার মহিবুর রহমান দলবল নিয়ে বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তের ২৯ নম্বর মেইন পিলারের কাছে অবস্থান নেন। বিজিবির উপস্থিতি টের পেয়ে হাসানুজ্জামান পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন জানিয়ে তিনি বলেন, তাকে ধাওয়া দিয়ে গ্রেফতার করা হয়। তার দেহ তল্লাশি করে ১০টি সোনার বার পাওয়া গেছে। এর ওজন এক কেজি ১৬৩ গ্রাম; বাজারদর ৫১ লাখ ১৭ হাজার ২০০ টাকা। উদ্ধার করা সোনা যশোরে সরকারি কোষাগারে জমা দিয়ে হাসানুজ্জামানকে পুলিশে দেওয়া হবে বলে জানান বিজিবি কর্মকর্তা আরিফুল হক। এদিকে গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে বেনাপোলের আমড়াখালি চেকপোস্টে একটি যাত্রীবাহী বাস প্রায় ৯০ হাজার মার্কিন ডলারসহ থেকে দুই যুবককে আটক করা হয় বলে যশোর-৪৯ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আরিফুল হক জানান। এরা হলেন -নড়াইল জেলার খাসিয়াল গ্রামের আমির হোসেনের ছেলে ওবায়দুর রহমান (২৭) ও একই জেলার বাওয়ে সোনা গ্রামের কাওছার মোল্লার ছেলে মাসুদ মোল্লা (৩০)। আরিফুল বলেন, ভারত থেকে বৈদেশিক মুদ্রার একটি চালান নিয়ে দুই যুবক বাংলাদেশে আসছে খবর পেয়ে আমড়াখালি চেকপোস্টে অভিযান চালায় বিজিবি। সেখানে বেনাপোল থেকে যশোরমুখী একটি বাসে তল্লাশি চালিয়ে ওবায়দুর ও মাসুদকে আটক করা হয়। পরে তাদের কাছ থেছে নগদ ৮৯ হাজার ৮০০ মার্কিন ডলার উদ্ধার করা হয়; যা বাংলাদেশি টাকায় পঁচাত্তর লাখ তেতাল্লিশ হাজার দুইশত টাকার সমান। আইনি প্রক্রিয়া শেষে আটককৃতদের বেনাপোল পোর্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলে বিজিবির এ কর্মকর্তা জানান।

আপনার মতামত লিখুন :