মঠবাড়িয়ায় অগ্নিকান্ডে দগ্ধ হয়ে নব দম্পতির মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক:  পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া পৌর শহরের পশ্চিম কলেজ পাড়ায় রোববার ভোর রাতে অগ্নিকান্ডে নব দম্পতিসহ একটি বসত ঘর পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। স্থানীয় লোকজন ও দমকল বাহিনী এক ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হলেও ইজিবাইক চালক সাইফুল হাওলাদার (২২) ও স্ত্রী মনিরা বেগম (১৮) ঘটনাস্থলেই দগ্ধ হয়ে মারা যায়। অগ্নিকান্ডে প্রায় ১৫ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবার দাবী করেন।ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয় সূত্রে জানাযায়, উপজেলার হারজী নলবুনিয়া গ্রামের দরিদ্র আঃ বারেক হাওলাদার স্ত্রী ও সন্তানদের নিয়ে পৌর শহরের ৬নং ওয়ার্ডের পশ্চিম কলেজ পাড়ার স্কুল শিক্ষক শহিদুল ইসলাম সারদুলের ভাড়াটিয়া ঘরে বসবাস করে আসছিলেন। শনিবার দিনগত রাত সাড়ে দশটার দিকে আঃ বারেক ও তার পরিবারের ৬ সদস্য ঘুমিয়ে পড়ে। রাত চারটার দিকে হঠাৎ আগুনের লেলিহান শিখা ছড়িয়ে পড়তে দেখে আঃ বারেকের বড় ছেলে শহিদুল ইসলাম চিৎকার দেয়। এসময় আঃ বারেক (৬৫), স্ত্রী রুপিয়া বেগম (৫০), পুত্র ইজিবাইক চালক শহিদুল (৩২) ও তার শ্যালক রাকিব (১৮) ঘর থেকে বের হয়ে আসলেও ঘরের পাটাতনে (মাচায়) ঘুমন্ত নব বিবাহিত সাইফুল হাওলাদার ও তার স্ত্রী মনিরা দগ্ধ হয়ে মারা যায়। এসময় আঃ বারেকের দুই পুত্র শহিদুল ও সাইফুলের ইজিবাইক দুইটি পুড়ে ছাই হয়ে যায়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মিরা ঘটনাস্থলে গিয়ে স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় মৃতদের লাশ উদ্ধার করেন। অগ্নিদগ্ধে নিহত সাইফুলের শ্বশুর পাশ্ববর্তী পাথরঘাটা উপজেলার রুহিতা গ্রামের জেলে আনেচ হাওলাদার জানান, গত সাত মাস আগে সাইফুলের সাথে তার মেয়ের বিয়ে হয়।মঠবাড়িয়া ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার সুমন জানান, চার্জে দেয়া ইজিবাইকের বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিটের মাধ্যমে এ অগ্নি সংযোগের ঘটনা ঘটতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।মঠবাড়িয়া থানার অফিসার ইনচার্জ, মাসুদুজ্জামান অগ্নিদগ্ধ হয়ে দম্পতির মৃত্যুর সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ব্যাপারে মঠবাড়িয়া থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করা হয়েছে এবং লাশের ময়না তদন্তের জন্য রোববার দুপুরে পিরোজপুর জেলা মর্গে পাঠানো হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :