মন্তব্য প্রতিবেদন পুলিশ ক্যাডার পদে নিয়োগ প্রক্রিয়ায় পরিবর্তন প্রয়োজন

এইচ এম জালাল আহমেদ

নিয়োগের বিষয়টি বারবার বলার প্রয়োজনীয়তা এ কারনে বোধ করছি যে, নিয়োগ প্রক্রিয়া যতভালো হলে টেকসই হবে প্রশিক্ষণ কাঠামো। প্রশিক্ষণ কাঠামো নিয়ে পরবর্তী ভিন্ন আলোচনায় বলার চেষ্টা করব। এখানে নিয়োগের বিষয়টি আরো একটু পরিস্কার করা প্রয়োজন রয়েছে। যেমনটি বলেছি নিয়োগ বিধিতে বাংলাদেশ পুলিশ সদস্য কেমন হবে তার একটা সুনির্দিষ্ট নীতিমালা থাকা বাঞ্ছণীয়। পুলিশ বাহিনীর সদস্য কোথা থেকে শুরু হবে। কেমন হবে তাদের কর্মপরিধি। কেমন হবে তাদের অবস্থানের স্থান। কিভাবে তাদের প্রশিক্ষণ সম্পন্ন করা হবে। প্রশিক্ষণ পরবর্তী তাদের কর্মকা- পরিচালিত হবে। দৈনিক আমাদের কণ্ঠ পরিস্কারভাবেই বলছে, পুলিশ বাহিনীর সদস্য কর্মকর্তা শুরু হবে কনস্টেবল থেকে এবং দু’ধাপে নিয়োগ সম্পন্ন করা হলে বিভাগীয় পদোন্নতি, বাস্তব অভিজ্ঞতা, যোগ্যতা ও দুরদর্শীতা টেকসই মজবুত হবে বলেই বিশেষজ্ঞদের ধারনা। প্রথম ধাপে নিয়োগ হবে কনস্টেবল। তাদের নূন্যতম শিক্ষাগতযোগ্যতা থাকতে হবে ডিগ্রী। মাপের ক্ষেত্রে লম্বা ৫ ফুট ৬ ইঞ্জি, বুকের মাপ কমপক্ষে ৩২ ইঞ্জি।

প্রশিক্ষণের কেত্রে বেশকিছু বিষয় সংযুক্ত করা প্রয়োজন। এ প্রসঙ্গে বিস্তারিত প্রশিক্ষণ নিয়ে আলোচনায় বলার চেষ্টা করব। পূরে¦র লেখায় যে প্রস্তাব করা হয়েছে সেভাবে নিয়োগ পরবর্তী কর্মকান্ড পরিচালিত করা হলে যেমনটি হবার সেকথাও তুলে ধরা হয়েছে। কনস্টেবল নিয়ে এখানে আরো কিছু বলার রয়েছে বলে মনে করিনা। এখানে ক্যাডার পুলিশ কর্মকর্তা নিয়োগের বিষয়টি তুলে ধরার চেষ্টা করছি। পূর্বের লেখায় বলেছি বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীর নন ক্যাডার হবে কনস্টেবল নিয়োগ। তেমনিভাবে ক্যাডার বা বিসিএস পুলিশ কর্মকর্তা শুরু হবে পুলিশ পরিদর্শক পদ থেকে। এ ক্ষেত্রে আলোচনার বিষয় রয়েছে। সে আলোচনার কিছু অংশ তুলে ধরছি। বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীর ক্যাডার মানে বিসিএস ক্যাডার শুরু হওয়া উচিৎ পুলিশ পরিদর্শক পদ থেকে। এ পদে ভরিÍ করা হলে বিভাগীয় পরবর্তী পদোন্নতিতে জটিলতা কম হবে বলে মনে হচ্ছে।

এখানে উল্লেখ করা যেতে পারে। পুলিশ বাহিনীর পদ পদোন্নতি এরূপ করা হলে পরিচালনার ক্ষেত্রে সহজ একটি পথ তৈরি হবে এবং বিভাগীয় পদোন্নতিতে অনেকটা বেশী স্বচ্ছতা ফিরে আসার সম্ভাবনা রয়েছে। যে কথাটা বলা হচ্ছে, তা হচ্ছে, পদগুলো এভাবে বিন্যাশ করতে পারে যদি কর্র্তপক্ষ ইচ্ছে পোষণ করেন। কনস্টেবল, উপ পুলিশ পরিদর্শক (এএসআই), উপ পুলিশ পরিদর্শক (এসঅঅই), পুলিশ পরিদর্শক, ডেপুটি সহকারী পুলিশ সুপার( ডিইএসপি), সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি), অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এ্যাডিশনাল এসপি), পুলিশ সুপার (এসপি) অতিরিক্ত উপ মহাপুলিশ পরিদর্শক (এ্যাডিশনাল ডিআইজি), উপ মহাপুলিশ পরিদর্শক (ডিআইজি), অতিরিক্ত মহাপুলিশ পরিদর্শক (এ্যাডিশনাল আইজিপি) ও পুলিশ প্রধান মহাপুলিশ পরিদর্শক (আইজিপি)। এ পদগুলোর মধ্যে কনস্টেবল ও পুলিশ পরির্দশক পদে সরাসরি নিয়োগের প্রক্রিয়া রাখা যেতে পারে। কনস্টেবল নিয়োগ হবে নন ক্যাডার হিসেবে এবং পুলিশ পরিদর্শক পদে সরাসরি নিয়োগ হবে বিসিএস ক্যাডার হিসেবে।

বিসিএস ক্যাডারটি প্রথম শ্রেণীর কর্মকর্তা এবং পুলিশ বাহিনীর পুলিশ পরির্দশক পদটি ইতিমধ্যেই প্রথম শ্রেণীর কর্মকর্তা হিসেবে উন্নিত করা হয়েছে। সুতরাং পুলিশ বাহিনীর বিসিএস ক্যাডার পদে নিয়োগ পুলিশ পরিদর্শক পদেই নেয়া বাঞ্ছণীয়। এখানে আরো উল্লেখ্য পুলিশ পরির্দশক হিসেবে সরাসরি নিয়োগ প্রাপ্তরা মৌলিক প্রশিক্ষণের পর বাস্তব প্রশিক্ষন এক বছর করার পর তার ডিইএএসপি হিসেবে পদোন্নতি লাভ করবেন। অর্থাৎ পুলিশ পরিদর্শক এর র‌্যাংক হবে একটি পিপস। ডিইএএসপির র‌্যাংক হবে দু’টি পিপস। এখানে আরো উল্লেখ্য বিভাগীয় পরীক্ষার মাধ্যমে যারা পুলিশ পরিদর্শক হিসেবে পদোন্নতি লাভ করবেন বিসিএস ক্যাডারভূক্ত হয়ে তারা দু’বছর বাস্তব প্রশিক্ষণ নিবেন ক্যাডারভূক্তির মান উন্ননের জন্য। প্রশিক্ষণ শেষে দু’বছর দায়িত্বপালনের পর অর্থাৎ পুলিশ পরিদর্শক পদে পদোন্নতি লাভ করার নূন্যতম চারবছর পর জ্যেষ্ঠতার ভিত্তিতে ডিইএএসপি হিসেবে পদোন্নতির যোগ্যতা অর্জন করবেন।

বিসিএস ক্যাডারভূক্ত হয়ে যারা সরাসরি পুলিশ পরির্দশক পদে পদোন্নতি লাভ করবেন বা নিয়োগ পাবেন তারা মৌলিক ও বাস্তব প্রশিক্ষনের একবছরপর জ্যেষ্ঠতার ভিত্তিতে শন্যপদের পুরনের লক্ষ্যে ডিইএএসপি পদে পদোন্নতি লাভ করার যোগ্যতা অর্জন করবেন। এখানে আরো বলা প্রয়োজন যে আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ ও তদন্তের প্রয়োজনে থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বা থানা পুলিশ কর্মকর্তা হিসেবে ডিইএএসপিরা জ্যেষ্ঠতারভিত্তিতে নিয়োগ বা পদায়নযোগ্য হবেন। ডিইএএসপিরা ৬ বছর দায়িত্ব পালনের পর সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) হিসেবে পদোন্নতি লাভের যোগ্যতা লাভ করবেন। যরা এএসপি হিসেবে পদোনতি লাভ করবেন তারা হবেন সার্কেল পুলিশ কর্মকর্তা হিসেবে পদায়ন লাভ করবেন। একইভাবে মহানগর পুলিশ এর সহকারী পুলিশ কমিশনার (এসি) হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন। একইভাবে সমপদের জন্য সমর‌্যাংকের পুলিশ কর্মকর্তারা দায়িত্ব পালন করার যোগ্যতা অর্জন করবেন।

আপনার মতামত লিখুন :