মাদক সেবনে বাঁধা দেওয়ায় কলেজ ছাত্রের ওপর হামলা

ভান্ডারিয়া,পিরোজপুর,প্রতিনিধি

পিরোজপুরের ভান্ডারিয়ায় মাদক সেবনে বাঁধা দেওয়া এমদাদুল হক প্রিন্স (১৯) নামে এক কলেজ ছাত্রের ওপর মাদক সেবনকারিরা হামলা চালিয়ে আহত করেছে। গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় উপজেলার পৈকখালী গ্রামে ওই কলেজ ছাত্র এ হামলার শিকার হয়। আহত অবস্থায় তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় শনিবার রাতে আহত যুবকের পরিবার ৫জনকে আসামী করে ভান্ডারিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। আহত কলেজ ছাত্র এমদাদুল হক প্রিন্স উপজেলার পৈকখালী গ্রামের মুজাহিদুল ইসলাম এর ছেলে । অভিযুক্তরা হলো, মুবিন ওরফে সজিব (২০) শিপন হাওলাদার (১৯), সাগর সিকদার (২০), রিপন ডাকুয়া (১৮), সাইফুল ইসলাম (২০) ।

থানা ও স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে, উপজেলার পৈকখালী গ্রামের বখাটে মো. মুবিন ওরফে সবুজ দীর্ঘদিন ধরে তার সহযোগি কয়েক বখাটে মিলে এলাকায় মাদক সেবনের আড্ডা দিয়ে পরিবেশ নষ্ট করে আসছিলো । শনিবার সন্ধ্যায় বখাটে যুবকের দল মাদক কেনাবেচা ও সেবনের আড্ডা দিলে কলেজ ছাত্র এমদাদুল তাতে বাঁধা দেয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ওই পাঁচ বখাটে মিলে কলেজ ছাত্রকে বেদম মারপিট করে গুরুতর আহত করে। স্থানীয়রা আহত কলেজ ছাত্রকে উদ্ধার করে ভান্ডারিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এ ঘটনায় আহত কলেজ ছাত্রর মা পারভীন আক্তার মুকুল বাদী হয়ে অভিযুক্ত ৫জনকে আসামী করে থানায় মামলা দায়ের করেন। ভান্ডারিয়া থানার অফিসার ইন চার্জ এস.এম. মাকসুদুর রহমান জানান, ভান্ডারিয়া থানায় বাদী লিখিত অভিযোগ ভিত্তিতে একটি মামলা রেকর্ড করা হয়য়েছে। অভিযুক্ত আসামীদের গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে।

আপনার মতামত লিখুন :