রক্তাক্ত মিয়ানমারের রাজপথ

নিজস্ব প্রতিবেদক: মিয়ানমারের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর মান্দালয়ে অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভকারীদের ওপর গুলি চালানোর ঘটনা ঘটেছে। এসময় পুলিশের গুলিতে দুই বিক্ষোভকারী নিহত হয়েছেন বলে স্থানীয় গণমাধ্যমের বরাত দিয়ে খবর প্রকাশ করেছে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা।

বুধবার (০৩ মার্চ) নিরাপত্তা বাহিনী বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করার সময় এ ঘটনা ঘটে। এসময় আহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন।একজন চিকিৎসক এএফপি নিউজ এজেন্সিকে বলেছেন, একজন বিক্ষোভকারীকে সরাসরি বুকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে এবং অপর একজন ১৯ বছর বয়সী তরুণী মাথায় গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা গেছেন।

অনলাইনে সরাসরি সম্প্রচারিত এক ভিডিওতে শহরটিতে কাঁদুনে গ্যাসের ধোঁয়ার মধ্যে বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ হয়ে যেতে দেখা গেছে। শিক্ষকদের ইউনিফর্ম পরা এক নারী আর্তনাদ করে বলে ওঠেন, ওহ আমার চোখ, চোখ ব্যথা করছে।

ফ্রন্টিয়ার ম্যাগাজিন হত্যার খবরটি নিশ্চিত করে জানিয়েছে, পুলিশ প্রথমে বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে টিয়ার গ্যাস ও রাবার বুলেট ব্যবহার করে। ছত্রভঙ্গ বিক্ষোভকারীরা পুনরায় দলবদ্ধ হয়ে বিক্ষোভ শুরু করলে পুলিশ তাদের ওপর গুলি চালায়।

দক্ষিণপূর্ব এশিয়ায় অ্যাসোসিয়েশন অব সাউথইস্ট এশিয়ান ন্যাশন্স (এএসইএএন) জোটের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা মঙ্গলবার মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীকে সংযম দেখানোর আহ্বান জানালেও ঐক্যবদ্ধভাবে ক্ষমতাচ্যুত সরকারের নেত্রী অং সান সু চির মুক্তি ও গণতন্ত্র পুনর্বহালের আহ্বান জানাতে পারেনি।

১ ফেব্রুয়ারির সামরিক অভ্যুত্থানের পর থেকেই মিয়ানমারজুড়ে অস্থিরতা বিরাজ করছে। এতে ৫০ বছরেরও বেশি সময় ধরে সামরিক শাসনের অধীনে থাকা দেশটির গণতান্ত্রিক অগ্রযাত্রা রুদ্ধ হয়ে গেছে।

অভ্যুত্থানের পর থেকেই সামরিক শাসন বিরোধী গণতন্ত্রপন্থিরা রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন। প্রথম দিকে সংযম দেখালেও গত কয়েকদিন ধরে বিক্ষোভ দমনে সহিংসপন্থা নিয়েছে দেশটির নিরাপত্তা বাহিনী। পুলিশের গুলিতে মঙ্গলবার পর্যন্ত অন্তত ২১ জন প্রতিবাদকারী নিহত হয়েছেন।সহিংসতায় একজন পুলিশও নিহত হয়েছেন বলে দেশটির সেনাবাহিনী জানিয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :