রানা প্লাজায় নিহতদের প্রতি শ্রদ্ধা

জাহাঙ্গীর আলম রাজু,সাভার
সাভারে রানা প্লাজা ধসে নিহত শ্রমিকদের ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন স্বজন ও বিভিন্ন শ্রমিক সংগঠনের নেতাকর্মীরা। বুধবার সকালে সাভার বাজার বাসস্ট্যান্ড এলাকায় ধসে পড়া রানা প্লাজার ছয় বছর উপলক্ষে সামনে অস্থায়ী বেদিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানো হয়। এ সময় বিভিন্ন শিল্প এলাকা থেকে শ্রমিকরা দলে দলে মিছিল নিয়ে আসেন। শহীদদের শ্রদ্ধা জানাতে এসে আহত শ্রমিক নিলুফা ও হৃদয় জানান, নিজের জীবন উন্নয়নে রানা প্লাজায় কাজ নিয়েছিলেন তারা। অথচ সেই রানা প্লাজাই তাদের আজ নিঃস্ব করে দিয়েছে।

এতগুলো শ্রমিকদের জীবন শেষ করে দেওয়া রানা প্লাজার ঘটনায় পেছনে দায়ী ব্যক্তিদের এখনও বিচার কাজ শেষ হয়নি। তাই অবিলম্বে তারা আজকের এই দিনকে শোক দিবস ঘোষণার পাশাপাশি দ্রুত বিচার কাজ শেষ করে দোষীদের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি জানান। বাংলাদেশ গার্মেন্টস অ্যান্ড শিল্প শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি সুজনসহ একাধিক শ্রমিক সংগঠনের নেতাকর্মীরাও নিহতদের ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। এসময় তার এ ঘটনার বিচার ও ক্ষতিপূরণের দাবি জানান। এছাড়াও সকাল থেকে রানা প্লাজার সামনে মোতায়েন করে রাখা হয়েছে অতিরিক্ত পুলিশ। অস্থায়ী বেদির সামনে কাউকে বেশি সময় অবস্থান করতে দেওয়া হচ্ছে না।

পুলিশ সদস্যরা বেদির সামনে থেকে শ্রদ্ধা জানানো শেষে লোকজনদের সরিয়ে দিচ্ছে। উল্লেখ্য, ২০১৩ সালের ২৪ এপ্রিল সাভারের বহুল আলোচিত রানা প্লাজাধসে পড়লে ১১৩৮ শ্রমিক নিহত হন। এরপর সোহেল রানা ওরফে রানাসহ তার পরিবারের বিভিন্ন ব্যক্তির বিরুদ্ধে দুদক ও রাজউক সাভার এবং ধামরাই থানায় ৭টি মামলা করে। ঘটনার পর থেকে রানা কোনো মামলায় জামিন না পাওয়ায় জেলহাজতেই আছেন। ভবনধসের ঘটনায় আহত ও নিহতদের ক্ষতিপূরণ দিতে ২০১৪ সালের ১৩ মার্চ আদালতের নির্দেশে রানা প্লাজার মালিক সোহেল রানার ব্যক্তিগত সব সম্পদ বাজেয়াপ্ত করে সরকার। তবে ছয় বছর পার হয়ে গেলেও এ ঘটনায় হতাহত শ্রমিক ও তার স্বজনরা সুবিচার পাননি। বিচার হয়নি অভিযুক্তদের। মামলাগুলোর তেমন কোনো অগ্রগতি নেই।

আপনার মতামত লিখুন :