লকডাউনে চলছে গাংনীর বামন্দী পশুহাট

নুরুল হুদা, মেহেরপুর

লকডাউনে মেহেরপুরের গাংনীর বিভিন্ন বাজারে দোকানপাট বন্ধ থাকলেও মহা উৎসবে চলেছে বামন্দী পশু হাট। গতকাল সোমবার সকাল থেকে বামন্দী পশুহাটে দেদারছে কেনা বেচা চলেছে। কোন স্বাস্থ্য বিধি মানা হচ্ছে না। পশুহাট বন্ধে সরকারী কোন নির্দেশনা না থাকায় কোন ব্যবস্থা নিতে পারছেন না বলে জানিয়েছেন উপজেলা প্রশাসন। করোনা বিস্তার রোধে সরকার সারা দেশে লকডাউনের ঘোষণা দেন। সেই সাথে এক পরিপত্র জারী করেন। বন্ধ করা হয় সরকারী বেসরকারী সকল অফিস আদালত, দোকানপাট ও জনসমাগম ঘটে এমন সব অনুষ্ঠান। সেই আলোকে গাংনীর বিভিন্ন বাজারে দোকানপাট বন্ধ ঘোষণা করা হয়। প্রশাসন কঠোর নজরদারী শুরু করেন। অথচ লক্ষাধিক লোকের সমাগম স্থল বামন্দী পশু হাটে দেদারছে চলেছে বেচা কেনা। কয়েক হাজার পশুবাহী গাড়ি চলাচল করে। সেই সাথে ব্যবসায়িদের প্রয়োজন মেটাতে বামন্দী বাজারের সব দোকানপাট খোলা ছিল। বামন্দী পশু হাট খোলা ও বন্ধে কোন বিধি নিষেধ আছে কিনা জানতে চাইলে গাংনী উপজেলা নির্বাহী অফিসার আরএম সেলিম শাহনেওয়াজ জানান, সরকারী প্রজ্ঞাপণ অনুযায়ী প্রশাসন ব্যবস্থা নিচ্ছেন। কিন্তু পশুহাটের ব্যাপারে কোন বিধি নিষেধ না থাকায় কোন প্রকার ব্যবস্থা নিতে পারছেন না তারা। এদিকে স্থানীয় ব্যবসায়িরা জানান, বিভিন্ন দোকানে স্বাস্থ্য বিধি মেনে মালামাল বিক্রি করা হলেও সরকার দোকান পাট বন্ধ করে দিয়েছেন। আর যেখানে কোন স্বাস্থ্য বিধি বা সামাজিক দূরত্ব নেই সেখানে কি করে খোলা থাকে? এ নিয়ে নানা ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছে সাধারণ ব্যবসায়িদের মনে।

আপনার মতামত লিখুন :