লালমনিরহাটে করোনা জনসচেতনায় প্রশাসন

লালমনিরহাট প্রতিনিধি

লালমনিরহাট জেলায় ঢিলেঢালাভাবেই পার হচ্ছে সরকার-ঘোষিত ৭দিনের লকডাউনের দ্বিতীয় দিন। দোকানপাট বন্ধ থাকলেও দোকানের সামনে বা আশেপাশেই চুপচাপ বসে রয়েছেন দোকানের মালিক বা কর্মচারী। পরিস্থিতি বুঝে বন্ধ সাটার খুলে বেচাকেনাও করছেন তারা। মাইকিং করা ছাড়া সরকার ঘোষিত নির্দেশনা কার্যকরে প্রশাসনের তেমন কোনো ব্যবস্থা চোখে পড়েনি। সকাল থেকে জেলা জুড়েই ব্যাটারিচালিত রিক্সা ও ইজিবাইক চলছে আগের মতই। লালমনিরহাট জেলা শহরের গোশালা বাজারসহ অন্যান্য হাট-বাজারগুলো কাঁচাবাজারে মানুষের উপচে পড়া ভিড় ছিল। সেখানে সামাজিক দূরত্বের কোনো বালাই নেই। বাজারে আসা অধিকাংশ মানুষের মুখে ছিল না মাস্ক। মুখে মাস্ক নেই কেন জানতে চাইলে পথচারীরা বলেন, মাস্ক পকেটে আছে। বেশি ভিড় দেখলেই পড়ি। সরকারি অফিস বন্ধ থাকলেও ব্যাংকগুলো খোলা রয়েছে। তবে কঠোর নিয়ম মানা হচ্ছে সেখানে। লালমনিরহাট জেলার ৫টি (লালমনিরহাট সদর, আদিতমারী, কালীগঞ্জ, হাতীবান্ধা, পাটগ্রাম) উপজেলা শহর ও গ্রামাঞ্চলে লকডাউন আরও ঢিলেঢালাভাবে পালন করা হচ্ছে।

 

 

আপনার মতামত লিখুন :