শ্রীমঙ্গলে বাড়ছে নিত্য প্রয়োজনী দ্রব্যের দাম

শ্রীমঙ্গল, মৌলভীবাজার প্রতিনিধি

মৌলভীবাজার শ্রীমঙ্গলে লকডাউন ঘোষনা ও রমজান মাসকে সামনে রেখে লাফিয়ে লাফিয়ে বেড়ে চলেছে নিত্য প্রয়োজনী দ্রব্যের দাম। গত এক সপ্তাহে ব্যবধানে নিত্য প্রয়োজনী দ্রব্যের দাম অনেক বেড়ে গেছে। এতে বিপাকে পড়েছে ক্রেতারা। অনেকেই বাজার করতে এসে হতবাগ হয়ে যাচ্ছেন। কারণ দ্রব্যের দাম অনেকটা নাগালের বাইরে চলে যাচ্ছে। ক্রেতারা বলছেন, বাজার নিয়ন্ত্রনে মনিটরিং না থাকায় বাড়ছে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম। সরেজমিনে ঘুরে দেখা গেছে, খুচরা বাজারে পাঁচ লিটার সোয়াবিন তেল ৬৩৫/৬৪৫ টাকা, চিনি প্রতি কেজি ৭০ টাকা, পেঁয়াজ ৩৮ টাকা, এলসি পেয়াজ ৩০ টাকা, রসুন দেশি ৫৫টাকা, মরিছ ২২০টাকা, আদা ৭০ টাকা, চানা ৬৩ টাকা, হলুদ ১৬০টাকা, চানার ডাল ৪৪ টাকা, মুসরী ডাল ৬৮ টাকা, বেসন ৭০ টাকা, আলু ২০/২৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। গত এক সপ্তাহ আগে ছিল, পাঁচ লিটার সোয়াবিন তেল ৬১০ টাকা, চিনি প্রতি কেজি ৬১ টাকা, পেঁয়াজ ২২/২৩ টাকা, এলসি পেয়াজ ১৮ টাকা, রসুন দেশি ৫০টাকা, মরিছ ২১০টাকা, আদা ৪৩ টাকা, চানা ৫৬ টাকা, হলুদ ১১২টাকা, চানার ডাল ৪০/৪১ টাকা, মুসরী ডাল ৬২/৬৩ টাকা, বেসন ৬০ টাকা, আলু ১৫ টাকা। এদিকে বেড়েছে চাউলের দাম। প্রতি বস্তাতে বেড়ে ১০০/৩০০ টাকা। তবে কমতে সবজির দাম। নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য কিনতে আসা ক্রেতা মোসাহিদ আহমদ বলেন, দু’দিন আগেও যেসব পন্যের দাম হাতের নাগালে ছিলো, হঠাৎ করে সেগুলোর দাম বেড়ে গেছে। এমন চলতে থাকলে ক্রেতারা কিভাবে বাজার করবে। ক্রেতা চঞ্চল দত্ত বলেন, বাজারে যে ভাবে প্রয়োজনী দ্রব্যের দাম বেড়ে চলতে আমার মত মধ্যবিত্ত যারা তাদের বাজার করতে খুব কষ্ট হচ্ছে। তাই বাজার মনিটরিং প্রয়োজনী দ্রব্যের দাম করে নিয়ন্ত্রনে আনা হোক। ব্যবসায়ী আবাদ মিয়া বলেন, আগের চেয়ে কিছুটা দাম বেড়েছে। তবে কেন বেড়েছে তা জানাতে পারেননি তিনি। এবিষয় শ্রীমঙ্গল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. নজরুল ইসলামকে ফোন দিলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

 

আপনার মতামত লিখুন :