সোনারগাঁওয়ে অবহেলিত নুনেরটেকে বৃক্ষরোপণ

সোনারগাঁও, নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলার বারদী ইউনিয়নে মেঘনা নদীর ওপারে অবহেলিত নুনেরটেক এলাকার সৌন্দর্য বৃদ্ধি, পর্যটকদের পথ সুগম ও দৃষ্টিনন্দনের জন্য ৭’শত বৃক্ষরোপণ করলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ সাইদুল ইসলাম। প্রাকৃতিক লীলাভূমি নুনেরটেক এলাকার চারদিক নদী বেষ্টিত অপরূপ সৌন্দর্য ভাসছে মেঘনা নদী। নুনেরটেকের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্য বৃদ্ধি ও নুনেরটেককে রক্ষা করতে ৭’শ বৃক্ষ রোপন করেছে সোনারগাঁ উপজেলা প্রশাসন। ২৬টি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠননের মাধ্যমে এ বৃক্ষ রোপন করা হয়। গতকাল শনিবার সকালে সংগঠনের প্রায় দেড় শতাধিক স্বেচ্ছাসেবী কৃষ্ণচূড়া, পলাশ, শিমুল, মেহগনিসহ বিভিন্ন ফলদ ও বনজ বৃক্ষ রোপন করে। এলাকাবাসীসূত্রে জানা গেছে, মেঘনা নদীর মাঝখানে অবহেলিত নুনেরটেক এলাকায় বৃক্ষরোপণের এমন পদক্ষেপ অবশ্যই প্রশংসার দাবীদার।

দীর্ঘ সময় ধরে নুনেরটেক এলাকার বালু সন্ত্রাসীদের বালু উত্তোলনের ফলে বিস্তীর্ণ এলাকা বিলীন হয়ে যাচ্ছে। যতটুকু আছে বালু সন্ত্রাসীদের হাত থেকে রক্ষা করতে হলে প্রশাসনের নজরদারীর কোন বিকল্প নেই। তাই বৃক্ষরোপন করে রক্ষনাবেক্ষন করে এর সৌন্দর্য বৃদ্ধি করতে পারলেই দেশী-বিদেশী পর্যটকদের জন্য আরো আকর্ষনীয় হয়ে উঠবে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোঃ সাইদুল ইসলাম জানান, নুনেরটেক এলাকাটি একটি অপার সৌন্দর্য্যের লীলাভূমি। এর সৌন্দর্য্য কিভাবে বাড়ানো যায় সেই লক্ষ্যেই সোনারগাঁওয়ের ২৬ টি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন আমাদের ডাকে সাড়া দিয়েছে। বৃক্ষ রোপন করার কারনে এই এলাকার মানুষজন অত্যন্ত খুশী হয়েছে। তিনি আরও জানান, নুনেরটেক এলাকাটি কেয়ারটেকারের মাধ্যমে এখন থেকে সবসময় প্রশাসনের নজরদারীতে থাকবে। সেই সাথে বালু সন্ত্রাসীরা যাতে মেঘনা নদীর বালু কেটে এই এলাকাটিকে ধ্বংস করতে না পারে সে লক্ষ্যে কাজ করে যাবে উপজেলা প্রশাসন।

আপনার মতামত লিখুন :