৫ বছরের শিশুকে ধর্ষণ!

ময়মনসিংহ প্রতিনিধি:

ময়মনসিংহের ভালুকায় ৫ বছরের শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে সেলিম মিয়া (৪৫) নামে এক মুদি দোকানির বিরুদ্ধে। ধর্ষক সেলিম উপজেলার ভরাডোবা ইউনিয়নের কডোর মার্কেট এলাকার মৃত তাহের মুন্সির ছেলে। বিষয়টি নিশ্চিত করে ভালুকা থানার ওসি মাইন উদ্দিন বলেন, ভিক্টিম শিশুটি সোমবার থেকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন।

তিনি বলেন, এ ঘটনায় মঙ্গলবার (১৩ অক্টোবর) রাতে শিশুর বাবা বাদী হয়ে সেলিম মিয়াকে আসামী করে ভালুকা থানায় মামলা করেছেন। এর আগে রবিবার (১১ অক্টোবর) দুপুরে উপজেলার ভরাডোবা ইউনিয়নের কডোর মার্কেটের এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

মামলার নথির বরাত দিয়ে ওসি মাইন উদ্দিন বলেন, সেলিম উপজেলার ভরাডোবা ইউনিয়নের কডোর মার্কেটের এলাকায় বিয়ে করে শ্বশুর বাড়িতে ঘর জামাই হয়ে থাকেন। বাড়ির ভেতরেই একটি মুদির দোকান করেন সেলিম। গত রবিবার দুপুরের দিকে দোকানে মজা কিনতে আসে ওই শিশু।

এক পর্যায়ে সেলিম শিশুকে খাবারের লোভ দেখিয়ে তার দোকানের ভেতর নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। পরে শিশুকে কাউকে কিছু না বলার জন্য ভয়ভীতি দেখিয়ে বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়। শিশুটি বাড়িতে ফিরে অসুস্থ হয়ে পড়লে তার মায়ের জিজ্ঞাসাবাদে সেলিম মিয়ার নাম বলে ওই শিশু।

পরদিন (১২ অক্টোবর) সোমবার সন্ধ্যার দিকে স্থানীয় লোকজন বিষয়টি জানতে পেরে থানায় খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ও ভিক্টিম শিশুকে উদ্ধার করে ভালুকা উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন। সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ওই মিশুকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করেন কর্তব্যরত চিকিৎসক।

ওসি মাইন উদ্দিন আরও বলেন, এ ঘটনার পর থেকেই সেলিম মিয়া পলাতক রয়েছেন। তাকে গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত আছে।

আপনার মতামত লিখুন :