লড়াই করে গণতন্ত্র ফেরাতে হবে : দুদু

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও কৃষক দলের আহ্বায়ক শামসুজ্জামান দুদু বলেছেন, গণতন্ত্র, স্বাধীনতা কখনও কোনো স্বৈরাচারী সরকার এমনি এমনি দেয় না। অতীতে লড়াই করে, যুদ্ধ করে স্বাধীনতা, গণতন্ত্র এনেছি। আবার দেশে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা ও স্বাধীনতা আনতে হলে লড়াই করে আনতে হবে।

বৃহস্পতিবার (৫ সেপ্টেম্বর) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে জাতীয়তাবাদী চালক দলের উদ্যোগে ‘দুর্নীতির বিরুদ্ধে ও সুশাসন প্রতিষ্ঠায় অক্যবদ্ধ হও’ ব্যানারে আয়োজিত এক মানববন্ধনে এসব কথা বলেন তিনি।

দ‌ুদু বলেন, বাংলাদেশে একটি শ্বাসরুদ্ধকর পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে। কোথাও জবাবদিহি নেই। আইনের সুশাসন নেই। সুষ্ঠু বিচারব্যবস্থা নেই। এ দেশ একটি ব্যর্থ রাষ্ট্র হিসেবে রূপান্তরিত হতে যাচ্ছে।

তিনি বলেন, মুক্তিযোদ্ধারা স্বাধীন করেছে এ দেশ। এ স্বাধীনতা অর্জন করতে ৩০ লাখ লোক শহীদ হন, রাস্তাঘাট,ঘরবাড়ি, জমির ফসল নষ্ট হয়। এতকিছু ক্ষতির মধ্য দিয়ে এ দেশ স্বাধীন হয়েছে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্য ,সুশাসন প্রতিষ্ঠার জন্য। কিন্তু আজ দেশের যে পরিস্থিতি এই পরিস্থিতির জন্য দেশ স্বাধীন হয় নাই। এখন দেশে কোনো গণতন্ত্র নেই। স্বাধীনতা নেই, সুশাসন নেই, মানুষ ভোট দিতে পারে না। দেশে এমন কোনো প্রতিষ্ঠান নেই যেখানে দখল নেই, দুর্নীতি নেই। এটা একটি শ্বাসরুদ্ধকর পরিস্থিতি।

সাবেক এই সংসদ সদস্য বলেন, প্রধানমন্ত্রী অসুস্থ হয়ে বিদেশে যান চিকিৎসার জন্য। তিনি যেতেই পারেন। কিন্তু সাবেক প্রধানমন্ত্রী অসুস্থ হলে তার চিকিৎসার জন্য কোর্টের অনুমতি নিতে হয়। অনুমতি দিলেও সরকার ও জেলের কর্তৃপক্ষ তালবাহানা করে। এ কেমন বিচার? এ কেমন গণতন্ত্র? নিজের চিকিৎসার জন্য বিদেশে যাবেন অথচ সাবেক প্রধানমন্ত্রীর চিকিৎসার কোনো ব্যবস্থা করবেন না, চিকিৎসা নিতে দেবেন না।

দুদু বলেন, দেশে এমন কোনো প্রতিষ্ঠান নেই যেখানে দুর্নীতি হয় না। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে যাবেন, টাকা ছাড়া কোনো কাজ হবে না। সম্প্রতি ২৭ হাজার কোটি টাকা, এর আগে ৯৬ হাজার কোটি টাকা শেয়ার মার্কেট থেকে লুটপাট হয়। সরকারের এ বিষয়ে কোনো মাথাব্যথা আমরা দেখি না। কোনো মামলাও হয় নাই। অর্থমন্ত্রী ঘুরে বেড়াচ্ছেন। এই লুটপাটের সঙ্গে যারা জড়িত তারা ঘুরে বেড়াচ্ছেন। তাই এই দুর্নীতি বন্ধ করার জন্য সবাইকে এক জায়গায় দাঁড়াতে হবে।

বিএনপির এই নেতা বলেন, কোর্ট-কাচারিতে যাবেন, সুষ্ঠু বিচার পাবেন না। সরকারের হুকুম ছাড়া জামিন পাবেন না। দেশে আইনের শাসন ছাড়া সুষ্ঠু বিচারব্যবস্থা প্রতিষ্ঠিত হয় না। স্বাধীনতা ছাড়া, গণতন্ত্র ছাড়া, নাগরিকের অধিকার ছাড়া সুশাসন প্রতিষ্ঠা হয় না। তাই সুশাসন ও গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্য ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে।

সংগঠনের সভাপতি জসিম উদ্দিন কবিরের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন কৃষক দল নেতা শাহজাহান মিয়া সম্রাট, আহ্বায়ক কমিটির সদস্য কে এম রকিবুল ইসলাম রিপন, সংগঠনের সিনিয়র সহ-সভাপতি মানিক তালুকদার, সাধারণ সম্পাদক বি এম শাহজাহান প্রমুখ।

আপনার মতামত লিখুন :