সুবর্ণচরে প্রেমিকার সামনে প্রেমিককে বেধড়ক মারধর,অপমানে আত্মহত্যা পরিবারের দাবি হত্যা, প্রভাবলাশীদের হস্তক্ষেপে সুষ্ঠু বিচারের আশংঙ্খা

আবু রায়হান সরকার,নোয়াখালী
নোয়াখালী সুবর্ণচরে প্রেমিকার স্বজনদের মারধরের শিকার এক স্কুল ছাত্রেরর মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে।প্রেম সংক্রান্ত বিষয়কে কেন্দ্র করে, প্রেমিকা ও তার চাচাতো বোনদের সামনে মারধরের শিকার প্রেমিক মো. রিয়াজ (১৪), অপমান সইতে না পেরে শুক্রবার গভীর রাতে বিষপান করে। পরে মূমুর্ষ অবস্থায় ঢাকা নেওয়ার পথে ওই দিনই তার মৃত্যু হয়।

ময়নাতদন্ত শেষে গতকাল বিকাল ৫ টার দিকে নিহতের লাশ পারিবারিক কবরস্থানে দাপন করা হয়েছে। এর আগে গত বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে প্রেমিকা ও তার চাচাতো বোনদের সামনে প্রেমিক রিয়াজ কে স্কুল থেকে যাওয়ার পথে বেধড়ক মারধরের এ ঘটনা ঘটিয়েছে প্রেমিকার চাচাতো ভাই ও তার সাঙ্গপাঙ্গরা।নিহত স্কুল ছাত্র উপজেলার ৭নং পূর্বচরবাটা ইউনিয়নের চর নাঙ্গুগুলিয়া গ্রামের আবুল কাশেম’র ছেলে এবং পূর্বচরবাটা স্কুল এ- কলেজের ছাত্র ছিল।

নিহতের পরিবার ও সহপাঠিরা দাবি করেন,আত্মহত্যা নয়, তাকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। অভিযুক্ত রাব্বি, শাকিব, আলাউদ্দিন কিশোর গ্যাংয়ের সদস্য, তারা প্রায় সময় স্কুল শিক্ষার্থীদের ইভটিজিং করে, কেউ প্রতিবাদ করলে মারধর করে। তাদের ভয়ে কেউ মুখ খুলেনা।এ ঘটনায় নিহতের সহপাঠি ও এলাকাবাসি রবিবার সকাল ১০ টায় এ হত্যার বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করে, খবর পেয়ে চরজব্বার থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। নিহতের বাবা কাশেম বলেন,পূর্বচরবাটা গ্রামের জসিম উদ্দিনের মেয়ে পূর্বচরবাটা স্কুল এ- কলেজের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রী সানজিদা ইয়াসমিন নাদিয়ার সাথে তাঁর ছেলের প্রেমের সম্পর্ক ছিল।

ঘটনার দিন গত বৃহস্পতিবার স্কুল ছুটির পর রিয়াজ আসার পথে নাদিয়া তাকে একটি চিঠি দেয়। ঐ চিঠি দেয়ার সময় দেখে পেলে মেয়ের আত্মীয় পূর্বচরবাটা গ্রামের বোরহান উদ্দিন ব্যাপারীর ছেলে আলা উদ্দিন (১৮), বেলায়েত হোসেন মাষ্টারের ছেলে ইকবাল হোসেন শাকিব, মনতাজ মাষ্টারের ছেলে রাব্বি (১৯), ছান্দু ডুবাইওয়ালার ছেলে বাবুয়াসহ অজ্ঞাত ২/৩ জন যুবক। পরে তারা রিয়াজকে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে আহত করে। পরে রিয়াজকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে আসে সহপাঠিরাসহ এলাকাবাসী।

পরে শুক্রবার সকালে রিয়াজের শরীরে ব্যাথা অনুভব হলে সে শৌরচিৎকার করতে থাকে পরে বাড়ীর লোকজন প্রথমে সুবর্ণচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান, অবস্থার অবনতি হলে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতাল নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তারের পরামর্শে ঢাকা নেয়ার পথে শনিবারে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ এ- হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়। এ বিষয়ে চরজব্বার থানার অফিসার ইনচার্জ সাহেদ উদ্দিন বলেন,প্রেমিকার ও তার চাচাতো বোনদের সামনে নিহত রিয়াজকে পিটিয়েছে অভিযুক্ত যুবকেরা।

রিয়াজ অপমান সইতে না পেরে বিষপান করে। তবে রিয়াজের শরীরের আঘাতের চিহ্ন ছিল। ময়নাতদন্ত রিপোর্ট পেলে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানা যাবে । তিনি আরও জানান, নিহতের পরিবার এ ঘটনায় দুই এক দিনের মধ্যে মামলা দায়ের করবেবলে জানিয়েছেন। পুলিশ অভিযোগ পেলে আইনআনুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

আপনার মতামত লিখুন :