রাজৈরে শারদীয় দূর্গাপূজা উপলক্ষে পূজা মন্ডপে অনুদান বিতরণ

রাজৈর,মাদারীপুর প্রতিনিধি

মাদারীপুর জেলার রাজৈর উপজেলায় আচমত আলী খান মিলনায়তনে শারদীয় দুর্গাপূজা উপলক্ষ্যে আইন শৃঙ্খলা রক্ষার্থে সকল পুজা উদ্যাপন কমিটির সভাপতি/সাধারন সম্পাদকের সমন্বয়ের সভা অনুষ্ঠিত হয়। স্থানীয় সংসদ সদস্য শাজাহান খানের ব্যক্তিগত তহবিল থেকে নগদ প্রতি মন্ডবে ১০০০/- টাকা করে অনুদান রাখেন। এসময় উপজেলার ২৫০ টি পুজা মন্ডপে উপজেলা প্রশাসন ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিভাগের পক্ষ থেকে পূজা মন্ডপ প্রতি ৫০০ কেজি চাল দেওয়া হয়।

আলোচনা সভায় রাজৈর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সোহানা নাসরিন এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সাবেক নৌ-পরিবহন মন্ত্রী ও মুুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সর্ম্পকিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা শাজাহান খান এমপি। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্যে রাখেন রাজৈর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা এম. এম মোতালেব মিয়া, সহকারী পুলিশ সুপার (সার্কেল) আবির হোসেন, পৌর মেয়র শামীম নেওয়াজ।

উপজেলা পুজা উদ্যাপন কমিটির আলোচনা সভায় আরো বক্তব্যে রাখেন ফজলুল হক বাবুল ভাইস চেয়ারম্যান রাজৈর উপজেলা পরিষদ, সেলিনা আক্তার মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রাজৈর উপজেলা পরিষদ, পুজা উদ্যাপন কমিটির সহ-সভাপতি বিনোদ রঞ্জন গাইন, সাধারন সম্পাদক মনি সুশিল কুমার সরকার, কদমবাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান বিধান বিশ্বাস এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন শাজাহান মিয়া অফিসার ইনচার্জ, রাজৈর থানা কবিরাজপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব টিপু সুলতান মাতুব্বর, হামিদুল শাহ আলম চেয়ারম্যান খালিয়া ইউনিয়ন, সাহাবুদ্দিন সাহা সভাপতি জাতীয় শ্রমিক লীগ রাজৈর উপজেলা, পল্লবী হাসান সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান, মরিয়ম মুজাহিদা অধ্যক্ষ সরকারি রাজৈর ডিগ্রি কলেজ।

রেদওয়ানুল হক মিয়া, আহবায়ক রাজৈর উপজেলা যুবলীগ, সুজন হোসেন রিফাত সদস্য মাদারীপুর জেলা ছাত্রলীগ,শেখ সাগর আহম্মেদ উজির উপজেলা যুবলীগ সদস্য এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন উপজেলার বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা, সুশিল সমাজের প্রতিনিধি, গনমাধ্যম কর্মী পূজারীবৃন্দরা সাংবাদিকদের এ প্রশ্নের জবাবে বলেন রাজৈর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবাস্তন কর্মকর্তা মাহাবুব হোসেন বলেন রাজৈর উপজেলায় দলমত নির্বিশেষে সকলে একত্রিত হয়ে সকল ধর্মকে সম্মান রেখে বিভিন্ন ধর্মীয় অনুষ্ঠাকে সাফল্য মন্ডিত করে তোলেন।

প্রধান অতিথি শাজাহান খান বলেন জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান যেমন : সাম্প্রদায়িকতা বিশ্বাস করতেন না তেমন প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ও সাম্প্রদায়িকতা বিশ্বাস করেন না। তাই বঙ্গবন্ধু সোনার বাংলাকে বাস্তবে রুপান্তর করার জন্য সকল ধর্মের প্রতি লক্ষ্যে রেখে আপনারা যার যার ধর্ম প্রতি গুরুত্ব দিবেন এবং ধর্ম নিয়ে কোন ফ্যাছাতে জড়াবেন না।

আপনার মতামত লিখুন :