কবিরহাট উপজেলা পরিষদ নির্বাচন নৌকার পক্ষে একাট্টা আওয়ামী লীগ

জাহিদুর রহমান শামীম,নোয়াখালী
পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে স্থগিত নোয়াখালীর কবিরহাট উপজেলা পরিষদ নির্বাচন আগামী ১৪ অক্টোবর অনুষ্ঠিত হবে। এ নির্বাচনকে সামনে রেখে কবিরহাটে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী কামরুন্নাহার শিউলীর নৌকা প্রতীকের পক্ষে একাট্টা হয়েছে স্থানীয় আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা।

চলতি বছরের ৩০ মার্চ এ উপজেলায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও আওয়ামী লীগ প্রার্থী কামরুন্নাহার শিউলী ও স্বতন্ত্র প্রার্থী আলাবক্স টিটুর কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে ২৮ মার্চ গোলাগুলির ঘটনায় নির্বাচনী পরিবেশ বিনষ্ট হওয়ায় ২৯ মার্চ বিকালে নির্বাচন কমিশন থেকে নির্বাচন স্থগিত ঘোষণা করা হয়।

সাম্প্রতিক জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক একরামুল করিম চৌধুরী এমপির ডাকে সাড়া দিয়ে নৌকা মার্কার প্রার্থী কামরুন্নাহার শিউলীর পক্ষে মাঠে শক্ত অবস্থান নিয়েছে উপজেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ সহ অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা। দলীয় নেতাকর্মীদের ঐক্যের কারণে এ উপজেলায় নৌকার প্রার্থীর বিজয় অনেকটা সুশ্চিত হয়ে পড়েছে।

এ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে মাঠে রয়েছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত কামরুন্নাহার শিউলী (নৌকা), খাদেমা আক্তার (দোয়াত কলম) স্বতন্ত্র ও আলাবক্স টিটু (আনারস) স্বতন্ত্র। ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) পদে মাঠে রয়েছেন মো: নজরুল ইসলাম (চশমা), মো: নুরুল আলম ভুঁইয়া (টিউবওয়েল) ও মো: মাঞ্জুর হোসেন (তালা)। ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) ফরিদা ইয়াছমিন (কলস), বিবি জয়নব (হাঁস) ও শাহানা আক্তার (পদœফুল) মাঠে রয়েছেন।

এ উপজেলায় ৭৪ হাজার ২৭১জন পুরুষ এবং ৭১ হাজার ৯৬০জন মহিলা ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করার কথা রয়েছে। কবিরহাট উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও কবিরহাট পৌরসভার মেয়র জহিরুল হক রায়হান বলেন আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী কামরুন্নাহার শিউলীর নৌকা মার্কার পক্ষে দলীয় সকল নেতাকর্মী একাট্টা হয়ে কাজ করছে। নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্টায় নৌকার বিজয় সুশ্চিত হবে বলে আশা করছেন তিনি। কামরুন্নাহার শিউলী কবিরহাট উপজেলা পরিষদে দুইবারের নির্বাচিত চেয়ারম্যান। তিনি এবারও আওয়ামী লীগ থেকে দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন।

শিউলী বলেন, র্দীঘদিন উপজেলা পরিষদের দায়িত্বে থাকার কারণে জনগনের জন্য কাজ করার সুযোগ হয়েছে। এলাকার দৃশ্যমান উন্নয়ন হয়েছে। দলীয় নেতাকর্মীদের মাঝেও ঐক্য তৈরী করা সম্ভব হয়েছে। জনগনের পাশে থাকার কারণে এবং বর্তমান সরকার উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষা করায় এবারও জনগন নৌকার পক্ষেই আছেন। দলীয় নেতাকর্মী ও জনগনের উচ্ছ্বাসই অগ্রিম বলে দিচ্ছে আবারও নৌকা মার্কার জয় হবে।

নোয়াখালী জেলা নির্বাচন অফিসার ও রিটার্নিং অফিসার মোহাম্মদ রবিউল আলম জানান সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন সম্পন্ন করতে সকল ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। ভোটাররা সুন্দরভাবে তাদের পচন্দের প্রার্থীকে ভোট দিতে পারবেন বলেও জানান তিনি।

আপনার মতামত লিখুন :